বাংলাদেশ

ভুল চিকিৎসায় গর্ভবতী মহিলার মৃত্যু- ডাক্তারের বিরুদ্ধে অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় একটি বেসরকারি প্রাইভেট হাসপাতালে গর্ভবতী মহিলার মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে । 

আজ ২৮শে জানুয়ারী সোমবার বিকাল- ৩.৩০ ঘঃ দি বাংলাদেশ হসপিটাল এন্ড ডায়াগনস্টি সেন্টার ভর্তিরত সুজিয়া(৩৫) নামের একজন মহিলার মৃত্যু হয় । সে বিজয়নগর উপজেলার পত্তন ইউনিয়নের নোয়াগাও গ্রামের হেফজু মিয়ার বউ । 

মৃত সুজিয়ার মা ডেইলী ম্যাপকে বলেন- আজ সকালে সুজিয়ার পেটে ব্যাথা উঠলে, কুমারশীরমোড়- প্রাইম ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ডাঃ শামসুন্নাহার রফিককে দেখায়, তখন তিনি আমার মেয়েকে কুমারশীরমোড়- দি বাংলাদেশ হসপিটাল এন্ড ডায়াগনস্টি সেন্টার ভর্তি হতে বলেন । তারপর দুপুর ১টায় হাসপাতালে ভর্তি করায় । বিকাল- ৩.৩০ ঘঃ সিজারের জন্য অপারেশন থিয়েটারে ঢুকানোর পর আমার মেয়ে মারা যায় ।

ডাঃ শামসুন্নাহার ডেইলী ম্যাপকে বলেন- আমি আজ দুপুরে রোগীটিকে দেখি তারপর গর্ভবতী মহিলার ডেলিভারি ১২ দিন ওভার হওয়ায় তাকে আর্জেন্ট সিজার করতে হবে বলে- দি বাংলাদেশ হসপিটাল এন্ড ডায়াগনস্টি সেন্টার ভর্তি হতে বলি । হাসপাতালের (ডিউটি ডাক্তার) ডাঃ শরিফুল ইসলাম আমার পরামর্শে সিজারের আগ মুহুর্তে রোগীকে একটি হার্টসল স্যালাইন পোষ করেন । তারপর সিজারের সকল প্রস্তুতি সম্পূর্ন হওয়ার পর এনেস্তেশিয়া ডাঃ মাশফিকুর রহমান পলাশ এনেস্তেশিয়ালজী করতে যাওয়ার পর দেখে রোগীটির খুব খিঁচুনি আসে । যার কারনে সে সিজারের আগেই মারা যায় । ডাঃ শামসুন্নাহার আরোও বলেন- আমাদের দেশে গর্ভাবস্থায় একলামশিয়ার কারনে অনেক গর্ভবতী নারীর মৃত্যু হচ্ছে ।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ১নং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আতিকুল ইসলাম ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন । তিনি বলেন- এই ব্যাপারে এখনো সঠিক কোন অভিযোগ পাওয়া যায়নি ।