বাংলাদেশ

সদর হাসপাতালের ভিতরে বহিঃরাগত মালিকদের এ্যাম্বুলেন্স পারকিং

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ 

অসুস্থ হলে, ধনী থেকে গরিব সবার প্রথমত আশ্রয়স্থল হচ্ছে সরকারি হাসপাতাল। সেই হাসপাতালে রয়েছে জরুরী রোগি পরিবহনকারী এম্বুলেন্স। আর সেই এম্বুলেন্স সেবা থেকে বিতারিত হচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলাসহ সদর উপজেলার সাধারন মানুষ কিছু অসাধু এম্বুলেন্স মালিকদের জন্য । 

২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে দেওয়া হয়েছে মাত্র ২টি এম্বুলেন্স। তার পাশাপাশি কিছু অসাধু এম্বুলেন্স মালিক ২৪ ঘন্টা সদর হাসপাতালে সেবা নামে তাদের এম্বুলেস পারকিং করার জায়গা করে নিয়েছে । যার ফলে কষ্ট করছে সাধারণ রোগীরা । এ বিষয়ে কথা বলতে চাইলে এম্বুলেন্স মালিকরা কথা বলতে রাজী হয়নি ।  

এ বিষয়ে সদর হাসপাতালের এম্বুলেন্স মালিক সমিতির জহিরুল ইসলাম জুম্মান এর সাথে কথা বললে- উনি বলেন যদি এই ধরনে অসাধু কাজের সাথে কোন এম্বুলেন্স মালিক জড়িত থাকে অবশ্যই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে ।

সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ শওকত হোসেন বলেন- সদর হাসপাতলে আমাদের ২টি এম্বুলেন্স রোগীর সেবাই দেওয়া আছে । যদি কোন এম্বুলেন্স মালিক তাদের এম্বুলেন্স সদর হাসপাতালে সময়-অসময়ে রাখেন, প্রমান পাওয়া যায় অবশ্যই তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে ।