বাংলাদেশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতাল ও ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স যৌথ উদ্যোগে অগ্নি নির্বাপণের মহরা-

রেবেকা সুলতানা মুক্তা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া নার্সিং ইন্সটিটিউটঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতাল ও ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স যৌথ উদ্যোগে অগ্নি নির্বাপণের মহরা ও প্রস্তুতিমূলক প্রশিক্ষণ কর্মশালা আয়োজন করা হয়েছিল । 

গতকাল ১৮ই এপ্রিল সকাল ১০.০০ ঘঃ হাসপাতাল চত্বরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতাল ও ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স যৌথ উদ্যোগে সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ শওকত হোসেন এর সভাপতিত্বে ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স এর সিনিয়র স্টেশন অফিসার- শাকারিয়া হায়দার নেতৃত্বে অগ্নি নির্বাপণে মহরা অনুষ্ঠিত হয় ।

সরকারী হাসপাতাল ও ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তর সরকারের একটি অন্যতম সেবাধর্মীয় প্রতিষ্ঠান। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের অধীন এ প্রতিষ্ঠানটি গতি, সেবা ও ত্যাগের মূলমন্ত্রে উজ্জীবিত। চিকিৎসা সেবা, প্রাকৃতিক ও মানবসৃষ্ট সব ধরনের দুর্যোগ এ প্রতিষ্ঠানটি ২টি প্রথম সাড়াদানকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে স্বীকৃত। সরকারী হাসপাতাল বিভাগের কর্মীরা সেবা দিয়ে থাকেন আর ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স এর কর্মীরা অগ্নি নির্বাপণ, অগ্নি প্রতিরোধ, উদ্ধার, আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান, রোগীদের হাসপাতালে ও ভিপিআইপিদের অগ্নি নিরাপত্তা বিধানে সদা প্রস্তুত থাকে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতাল ও ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স যৌথ উদ্যোগে অগ্নি নির্বাপণের মহরা আরোও উপস্থিত ছিলেন- সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার- ডাঃ রানা নুরুল সামস, ডাঃ একরামুলরেজা টিপু ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া নার্সিং ইন্সটিটিউটের প্রিন্সিপ্যাল সালাউদ্দিন মাধবর । তাছাড়া সদর হাসপাতালের ২য়, ৩য়, ও ৪র্থ শ্রেনীর কর্মচারিবৃন্দরা । 

হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডাঃ শওকত হোসেন ও সিনিয়র স্টেশন অফিসার- শাকারিয়া হায়দার অগ্নি নির্বাপণকে উদ্দেশ্য করে বলেন এবং অগ্নি নির্বাপণ করনীয় বিষয়গুলো তুলে ধরেন-

  • বিলম্ব না করে নিকটস্থ ফায়ার স্টেশনে সংবাদ দিন/অথবা কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রণ কক্ষে (০২-৯৫৫৫৫৫৫/০১৭৩০৩৩৬৬৯৯)অবহিত করুন
  • শুরুতেই আগুন নিভানোর চেষ্টা করুন
  • বহনযোগ্য অগ্নিনির্বাপনী যন্ত্র ব্যবহার করুন
  • বৈদ্যুতিক লাইনে/যন্ত্রপাতিতে আগুন ধরলে পানি ব্যবহার করবেননা। বহনযোগ্য কার্বন ডাই-অক্সাইড/ড্রাইকেমিক্যাল পাউডার এক্সটিংগুইসার ব্যবহার করুন। না পেলে শুকনো বালি ব্যবহার করুন। 
  • তৈল জাতীয় পদার্থের আগুনে পানি ব্যবহার বিপদজনক। বহনযোগ্য ফোমটাইপ ফায়ার এক্সটিংগুইসার/শুকনো বালি/ ভেজা মোটা কাপড় বা চটের বস্তা দ্বারা চাপা দিন।
  • গায়ে বা পড়নের কাপড়ে আগুন ধরলে মাটিতে গড়াগড়ি করুন।