বাংলাদেশ

বাবা-মায়ের চিকিৎসা হল না আর- ট্রাক-সিএনজি সংঘর্ষে প্রাণ গেল শিশু হামিমের

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দ্রুতগামী ট্রাক ও সিএনজি-চালিত অটোরিকশা সংঘর্ষে হামিম নামে এক আড়াই বছরের শিশু নিহত হয়েছে। শুক্রবার সকাল ৯.৩০টার দিকে কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের রামরাইল নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত হামিম ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার বিটঘর ইউনিয়নের দরুইল গ্রামের মুরশেদ আলমের একমাত্র ছেলে। এ ঘটনায় অটোরিকশার আরও পাঁচ যাত্রী আহত হয়েছেন। এরা হলেন, নিহত হামিমের বাবা মোরশেদ আলম (৪০) ও মা নাজমা বেগম (৩৫), মিলন মিয়া (২৮) এবং রাশেদা বেগম (৩৫) ও হাসেনা(৫০)তারা সবাই নবীনগর বিটঘরের ।
এর মধ্যে নিহত হামিমের বাবা মোরশেদ আলম ও মা নাজমা বেগমকে মূমূর্ষু অবস্থায় চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

নিহত হামিমের নিকট আত্মীয় নাইমা আক্তার জানান- হানিফের বাবা নবীনগর দরুইল উচ্চ বিদ্যালয়ে অফিস সহকারীর কাজ করে। হামিমের মা নাজমা বেগম ও বাবা মুরশেদ আলম অসুস্থ থাকায় শুক্রবার সকালে সিএনজি যোগে জেলা শহরে চিকিৎসার জন্য আসছিল। পথিমধ্যে এই দুর্ঘটনা ঘটে।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নারায়াণ চন্দ্র দাস দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সকালে রামরাইল এলাকায় সিএনজি চালিত অটোরিকশা জেলা শহরের দিকে আসছিল। এ সময় বিপরীত দিকে থেকে আসা দ্রুতগতির একটি পণ্যবাহী ট্রাক চাপা দেয়। এতে অটোরিকশার ছয়জন যাত্রী গুরুতর আহত হন। পরে তাদেরকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তবরত চিকিৎসক  ডাঃ নাজমুল হক হামিমকে মৃত ঘোষণা করেন।

ট্রাকটিকে আটক করা হলেও চালক পালিয়ে গেছে বলে জানান তিনি।