বাংলাদেশ

বিজয়নগরে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রার্থীর গাড়ি বহরে হামলার অভিযোগ- আহত-২০

ডেস্ক রিপোর্টঃ 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নির্দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থীর গাড়ি বহরে হামলা চালিয়ে গাড়ি ভাংচুর ও পুড়িয়ে দিয়েছে দৃর্বত্তরা। গত বুধবার (১৫-মে) রাত ১০টার দিকে উপজেলার হরষপুর ইউনিয়নের এক্তারপুর ব্রীজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। দুর্বৃত্তরা ৮টি মাইক্রোবাস ভাংচুর করে। এ সময় ২০জন আহত হয়। তবে এ সময় সম্ভ্রাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী নাছিমা লুৎফুর রহমান তখন গাড়ি বহরে ছিলেন না।

হামলার ঘটনার জন্য প্রার্থী নাছিমা লুৎফুর বিজয়নগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট তানবীর ভূইয়ার সমর্থক ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সারোয়ার রহমান ভূইয়ার সমর্থকদের দায়ী করেছেন। তবে উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট তানভীর ভূইয়া ও ইউপি চেয়ারম্যান সারোয়ার রহমান এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

এদিকে হামলার ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ও উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

নির্দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী নাছিমা লুৎফুরের নির্বাচনী সমন্বয়ক প্রকৌশলী মোশাহেদ হোসেন ভূইয়া বলেন, বুধবার রাতে উপজেলার হরষপুর ইউনিয়নের এক্তারপুর গ্রামে গণসংযোগ শেষে রাত সাড়ে ১০টার দিকে গাড়ি বহর এক্তারপুর ব্রীজ এলাকায় পৌছলে হামলার ঘটনা ঘটে।

তিনি বলেন, হরষপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সারোয়ার রহমান ভূইয়ার ছেলে ও উপজেলা যুবলীগের সহ-সম্পাদক দর্পন রহমান ভূইয়ার নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে অর্তকিত গাড়ি বহরে হামলা চালায়। এসময় একটি গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়। সন্ত্রাসীদের হামলায় ফরিদ মিয়া-(৪০), মামুন ভূইয়া-(৪২), রাজা মিয়া-(৭০), সোহরাব হোসেন ইকবাল-(৩৫), মজিবুর রহমান-(৫৫), লিটন-(৪৫), আমির হোসেন-(৫০) শফিকুর রহমান-(৫০), গাড়ির ড্রাইভার লাহু মিয়া-(৪০), রমজান-(৪৫), মোঃ মোশাররফ গনি-(৩৮) সহ তাদের সমর্থক ২০ জন আহত হয়। তারা বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা নেয়।

অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে পার্শ্ববর্তী হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলা থেকে দমকল বাহিনী ঘটনাস্থলে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।

এদিকে খবর পেয়ে রাতেই উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এবিএম মসিউজ্জামান এবং থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সুমন কুমার আদিত্য ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ ব্যাপারে নির্দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী নাছিমা লুৎফুর রহমান অভিযোগ করে বলেন, প্রতিপক্ষ ও আওয়ামীলীগের দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাডভোকেট তানবীর ভূইয়ার সমর্থক ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সারোয়ার রহমান ভূইয়ার সমর্থকরা তার গাড়ি বহরে হামলা করেছে। তিনি ঘটনার সাথে জড়িতদের শাস্তির দাবি জানান।

বিজয়নগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত ) সুমন কুমার আদিত্য বলেন, আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন বলেন, তদন্তক্রমে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ ব্যাপারে হরষপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সারোয়ার রহমান ভূইয়া বলেন, এ ঘটনায় তিনি এবং তাঁর ছেলে জড়িত নন। গাড়ি বহর স্থানীয় এক যুবককে ধাক্কা দেওয়ায় গ্রামবাসী গাড়ি বহরে হামলা করেছে।

বিজয়নগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট তানবীর ভূইয়া তার সমর্থকদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, বৃহস্পতিবার আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তিনি বলেন, গাড়ি বহর স্থানীয় এক যুবককে ধাক্কা দেওয়ায় উত্তেজিত গ্রামবাসী হামলা করেছে।

উল্লেখ্য, আগামী ১৮ই জুন বিজয়নগর উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ওই নির্বাচনে নির্দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে গণসংযোগ করে আসছেন কুয়েত-বাংলাদেশ বিজনেস কাউন্সিলের সভাপতি লুৎফর রহমানের সহধর্মীনি নাছিমা লুৎফুর রহমান।