বাংলাদেশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পাসপোর্ট করতে এসে সাজানো বাবা-মাসহ রোহিঙ্গা কিশোরী আটক

বাংলাদেশি নাগরিকের জন্মসনদ নিয়ে পাসপোর্ট করতে এসে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মরিচান (১৭) নামে এক রোহিঙ্গা কিশোরী আটক হয়েছে। এ সময় তার সাজানো বাবা-মাকেও আটক করা হয়েছে বলে জানান।

আজ ১লা আগস্ট বৃহস্পতিবার দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস থেকে তাদের আটক করা হয়। আটক বাকি দুইজন হলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার বিনাউটি ইউনিয়নের নেমতাবাদ গ্রামের মোখলেছুর রহমান (৫০) ও আখাউড়া উপজেলার মনিয়ন্দ ইউনিয়নের গিরিশনগর গ্রামের লিপা বেগম (৩৮)। 

মরিচান কক্সবাজারের কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাসিন্দা। সে মিয়ানমারের আরাকান রাজ্যের জাকেরের মেয়ে। তবে কসবা উপজেলার বিনাউটি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে পাওয়া জন্মসনদে মরিচানের নাম মোছাম্মৎ তানজিনা আক্তার ও বাবার নাম মো. মোখলেছ মুন্সী।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক মো. জামাল হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, দুপুরে পাসপোর্ট করার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে আমার কাছে আসে ওই রোহিঙ্গা কিশোরী মরিচান। তার সঙ্গে কথা বলার সময় সন্দেহ হলে জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে সে রোহিঙ্গা নাগরিক। পাসপোর্ট করার সময় যেন আমরা সন্দেহ না করি সেজন্য সাজানো বাবা-মাকে সঙ্গে নিয়ে এসেছে। পরে তাদের তিনজনকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ সেলিম উদ্দিন জানান, তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হবে।