বাংলাদেশ

ডেঙ্গু টেস্টে অতিরিক্ত ফি নেওয়ায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়- ৪ ক্লিনিককে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা

সারাদেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় ইতোমধ্যে এই রোগ নির্ণয়ের ফি ৫শ টাকা নির্ধারণ করে দিয়েছে সরকার। তবে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বেসরকারি ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলো অতিরিক্ত ফি আদায় করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার বিকেলে ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে তিনটি ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও একটি হাসপাতালকে ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করেছে।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তনিমা আফ্রাদের নেতৃত্বে শহরের কয়েকটি ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও বেসরকারি হাসপাতালে অভিযান চালানো হয়। অভিযানে ক্রিসেন্ট ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ডেঙ্গু নির্ণয়ের মূল্য তালিকা না ঝুলানো এবং রোগীদের কাছ থেকে নেয়া বিভিন্ন পরীক্ষার ফি আদায়ের রশিদ ঘেঁটে অতিরিক্ত মূল্য আদায় করায় ২৫ হাজার টাকা, মডার্ন ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অভিযান চালিয়ে রোগীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত মূল্য আদায় করায় ১০ হাজার টাকা এবং নাজ মেডিকেল হলের রোগ নির্ণয়ের রশিদ ঘেঁটে রিপোর্ট দেয়ার জায়গায় এক ধরণের টাকার অঙ্ক এবং একই পরীক্ষার জন্য ভিন্ন ভিন্ন টাকার অঙ্ক লেখা দেখতে পেয়ে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া হোপ ডায়াগনস্টিক সেন্টার অ্যান্ড হাসপাতালে মূল্য তালিকা ঝুলানো না থাকায় এবং ডেঙ্গু নির্ণয়ে অতিরিক্ত টাকা আদায় করায় ২৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযানের সময় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের সঙ্গে জেলা প্রশাসনের সহাকারী কমিশনার সাফফাত আরা সাঈদ এবং সিভিল সার্জন কার্যালয়ের চিকিৎসক এষণা পাল উপস্থিত ছিলেন।

অভিযান শেষে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তনিমা আফ্রাদ সাংবাদিকদের জানান, ডেঙ্গু নির্ণয়ের ক্ষেত্রে প্রযোজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য রোগীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ফি আদায় এবং মূল্য তালিকা না টানানোর কারণে এই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়েছে।

এদিকে বুধবার পর্যন্ত ১৮ জন ডেঙ্গু রোগী ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন বলে জানা গেছে। তাছাড়া প্রাইভেট ক্লিনিকগুলোতে আরোও ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন ।